সব

আন্তর্জাতিক আদালতে শুনানি

কাতারের নাগরিকেরা ইউএইতে আতঙ্কে

ডেস্ক রিপোর্ট | মঙ্গলবার, ১০ জুলাই ২০১৮ | 520 বার পড়া হয়েছে
কাতারের নাগরিকেরা ইউএইতে আতঙ্কে

হেগে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে শুনানির প্রথম দিনে কাতারের প্রতিনিধিরা

কাতারে অবরোধ আরোপের পর গত এক বছরে সংযুক্ত আরব আমিরাত সে দেশে বসবাসরত কাতারের নাগরিকদের পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন করা ও হয়রানির মাধ্যমে কাতারিদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে দিয়েছে। গত ২৭ জুন হেগে জাতিসংঘের শীর্ষ আদালতে শুনানিতে এ কথা বলা হয়েছে।

২০১৭ সালের জুন মাসে আবুধাবি আরোপিত অবরোধ তুলে নেওয়ার জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণের রায় দিতে হেগে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতের (আইসিজে) কাছে দোহা আবেদন জানানোয় উপসাগরীয় এলাকার এ সংকটটি আন্তর্জাতিক আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে।



বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, দোহার পক্ষের আইনজীবী ব্রিটিশ ব্যারিস্টার পিটার গোল্ডস্মিথ আদালতে বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতে বসবাসকারী কাতারের অনেক নাগরিক স্থায়ীভাবে আতঙ্কের মধ্যে বাস করছেন। তারা আরব আমিরাত থেকে বহিষ্কার আদেশের আতঙ্কে ভুগছেন।

সৌদি আরব, বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মিসর ২০১৭ সালের জুনে কাতারের ওপর অবরোধ ও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা আরোপ করে। এর ফলে ওই সব দেশের আকাশে কাতারের বিমান চলাচল নিষিদ্ধ এবং সৌদি আরবের সঙ্গে দেশটির একমাত্র স্থল সীমান্ত বন্ধ হয়ে যায়। এ ছাড়া উপসাগরীয় এই দেশগুলো ১৪ দিনের মধ্যে কাতারের নাগরিকদের দেশ ত্যাগের এবং নিজ নিজ দেশের নাগরিকদের কাতার থেকে দেশে ফেরত যাওয়ার নির্দেশ দেয়।

আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে শুনানির তৃতীয় ও শেষ দিনে গোল্ডস্মিথ বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত অবরোধ পরিস্থিতিতে কাতারের নাগরিকদের সহায়তার জন্য যে হেল্পলাইন স্থাপন করেছে সেটি আবুধাবি পুলিশের সঙ্গে সংযুক্ত করে দিয়েছে। এর ফলে আরব আমিরাতে অবস্থানরত কাতারের নাগরিকেরা ভয়ে তাদের কিংবা তাদের পরিবারের অবস্থান সম্পর্কে নিবন্ধন করতে হটলাইনের মাধ্যমে ফোন করছেন না। তাদের আশঙ্কা হটলাইনের মাধ্যমে পুলিশ আড়ি পেতে তাদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা নিতে পারে।

গোল্ডস্মিথ যুক্তি দেন, কাতারের একজন নাগরিকের সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রস্তাবিত প্রতিটি ট্রিপের জন্য আলাদা করে অনুমোদন নিতে হয়। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, কাতারের একজন নারী বৈরুতে নিয়মিত মেডিকেল চেকআপ করাচ্ছেন। এ জন্য তিনি যতবারই বৈরুত যান এরপর তিনি আরব আমিরাতে পরিবারের কাছে আসতে পারবেন কিনা তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন। আরব আমিরাতের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত কাতারের ছাত্রদেরও ইমেইলে তাদের প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। এরপর থেকে অনেক ছাত্র তাদের উচ্চ শিক্ষার কোর্স বাতিল করে দিয়েছেন।

দেশটির এজেন্ট মোহাম্মদ আবদুলাজিজ আল-খুলাইফি বলেন, কাতারের নাগরিকদের যেকোনো ধরনের মানবাধিকার লঙ্ঘন থেকে আরব আমিরাতকে বিরত রাখতে আদালতের জরুরি নির্দেশনা চায় দোহা। তিনি বলেন, মৌলিক অধিকার লঙ্ঘন বন্ধ করার জন্য এই আদালতই কাতারের একমাত্র ভরসা।

১৯৪৬ সালে প্রতিষ্ঠিত আন্তর্জাতিক এই বিচার আদালত বিভিন্ন দেশের বিরুদ্ধে নানা বিতর্কের বিষয়ে রায় দিয়ে থাকে। বিচারকেরা এখন দোহার আবেদনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। এ জন্য কয়েক সপ্তাহ কিংবা কয়েক মাসও লেগে যেতে পারে।
এর আগে এই সংকট নিরসনের ছয় জাতির উপসাগরীয় সহযোগিতা পরিষদের (জিসিসি) উদ্যোগে পরিচালিত কূটনৈতিক প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়।

সূত্র: প্রথম আলো

Facebook Comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

কাতার ট্রানজিট যাত্রীদের জন্যে সু-খবর

১৯ নভেম্বর ২০১৮ | 5015 বার পড়া হয়েছে

কাতারের বাইরে কাতার ভিসা কেন্দ্র।

০২ অক্টোবর ২০১৮ | 1817 বার পড়া হয়েছে

কাতারে সি পি এল টুর্নামেন্ট আয়োজন

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | 1177 বার পড়া হয়েছে

নুজুম লাল চা সাহিত্য আড্ডা

০৮ ডিসেম্বর ২০১৮ | 1016 বার পড়া হয়েছে

কাতারে আজ নতুন করে ৬৪ জন কোভিড-১৯ সনাক্ত

১৫ মার্চ ২০২০ | 964 বার পড়া হয়েছে

বহুমাত্রিক জীবন

১০ জুলাই ২০১৮ | 827 বার পড়া হয়েছে

কাতারের আকাশে পৃথীবির সবচেয়ে বড় ঘুড়ি

২৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | 807 বার পড়া হয়েছে

কাতারে স্বপ্নবাজ উদ্যোগতাদের মিলন মেলা

১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ | 736 বার পড়া হয়েছে

কাতারে ফুল উৎসব

০৯ ডিসেম্বর ২০১৮ | 714 বার পড়া হয়েছে

এ বিভাগের আরও খবর

উপদেষ্টা সম্পাদক

হাফেজ মাওলানা সাহাদাত হোসাইন

মোহাম্মদ নুরে আলম

হাফেজ মাওলানা আব্দুল হাসিব চৌধুরী

লোকমান আহমেদ

প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক

চৌধুরী হাসান মাহমুদ

প্রধান সম্পাদক

গোলাম রব্বানী

নির্বাহী সম্পাদক

হাফিজুর রহমান নাহিদ

বার্তা সম্পাদক

তাজ উদ্দিন আহমাদ

বিভাগীয় সম্পাদক

শাহ মাসুম খাদেম

সিএম হাসান

সম্পাদনা সহযোগী

ফয়েজুল ইসলাম চৌধুরী

আশিকুর রহমান

এনামুল হাসান চৌধুরী

যোগাযোগ: উম আল ধম রোড, মাইজার, আল রাইয়্যান, কাতার। ফোন: +974.77664095, ই-মেইল: foursidenews@gmail.com

all right reserved

design and development by: webnewsdesign.com