সব

নির্বাচনকালীন গুজব ঠেকাতে মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ করতে পারে নির্বাচন কমিশন

নিউজ ডেস্ক | সোমবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮ | 503 বার পড়া হয়েছে
নির্বাচনকালীন গুজব ঠেকাতে মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ করতে পারে নির্বাচন কমিশন

বাংলাদেশের নির্বাচনকে সামনে রেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর উপরে সার্বক্ষণিক নজরদারি করবে নির্বাচন কমিশন। কমিশন বলছেন, দরকার হলে মোবাইল নেটওয়ার্কও সাময়িক বন্ধ করে দেয়া হবে।

নির্বাচন কমিশন বলছে, গুজব ও অপপ্রচারের মাধ্যমে কেউ যদি  নির্বাচন বানচালের উস্কানি দেয় – তবে তা ঠেকাতে প্রয়োজনে এমনকি সেই এলাকার মোবাইল নেটওয়ার্কও বন্ধ করে দেয়া হবে।



কমিশনের সচিব হেলালুদ্দিন আহমদ বলছেন, সোশাল মিডিয়াতে কিন্তু অসংখ্য  ফেক আইডি আছে। যাদেরকে আমরা চিনতে পারছি না। তারা প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছে। যদি প্রয়োজন হয় তাহলে আমরা ঐসব পোষ্ট বন্ধ করে দিতে পারি।”

“অথবা, যদি এমন হয় যে ঐ সোশাল মিডিয়ার কারণে এলাকার আইন শৃঙ্খলার চরম অবনতি হতে পারে সেক্ষেত্রে আমরা নেটওয়ার্ক শাটডাউনও করতে পারি” – বলেন তিনি।

নির্বাচন কমিশন বলছে, নির্বাচনকেন্দ্রিক গুজব ও অপপ্রচার ঠেকাতে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোর উপরে সার্বক্ষণিক নজরদারি করা হবে।

এজন্যে টেলিকম নিয়ন্ত্রক সংস্থা থেকে শুরু করে ইন্টারনেট সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান, মোবাইল ফোন কোম্পানি ও পুলিশের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে।

কিন্তু কোন ধরনের মন্তব্য, ছবি, পোষ্ট, গুজব বা অপপ্রচারের আওতায় পড়বে?

এ প্রশ্নে জবাবে হেলালুদ্দিন আহমদ বলছেন, “যেমন দেলোয়ার হোসেইন সাইদীকে চাঁদে দেখা গেছে সেই গুজবকে ভিত্তি করে হাজার হাজার লোক রাস্তায় নেমে দেশের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনত করেছে। অথবা নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় একটা প্রোপাগান্ডা হয়েছে। সেটাই আমরা মাথায় রেখে নির্বাচনকে ঘিরে যাতে প্রচার করে মানুষকে উস্কানি দিতে না পারে – তা আমরা মনিটরিং করবো।”

বাংলাদেশে এবারের নির্বাচন এমন একটা সময়ে হচ্ছে যখন এর আগের যেকোনো নির্বাচনের তুলনায় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ব্যবহার হচ্ছে অনেক বেশি।

এর আগের কোন সরকার ও নির্বাচন কমিশনকে বিষয়টি নিয়ে এতটা ভাবতে হয়নি।

বিষয়টি এক ধরনের উদ্বেগ যে তৈরি করছে সেটি বোঝা যাচ্ছে।

হেলালুদ্দিন আহমদ বলছেন, গুজব বা অপপ্রচার পাওয়া গেলে তারা চলমান আইনে কঠোর ব্যবস্থা নেবেন।

তিনি বলছেন, নির্বাচন কমিশন নিজে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে নজরদারির একটি সেল তৈরি করেছে। তথ্য মন্ত্রণালয় আগে থেকেই কাজটি করছিলো। পুলিশের বাহিনীর সবগুলি ইউনিটে সাইবার মনিটরিং সেল গঠন করা হয়েছে। পুলিশ ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় পর্যায়ে তৈরি করেছে একটি সোশাল মিডিয়া মনিটরিং অ্যান্ড সাইবার ক্রাইম প্রিভেনশন কমিটি।

নির্বাচন কমিশনের ভাষায় ঝুঁকিপূর্ণ কোন পোষ্ট, ফেক আইডি, ভুয়া খবর – এগুলো যাচাই করার ব্যাপারে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীগুলো বড় ভূমিকা পালন করবে।

Facebook Comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস আজ

২৬ মার্চ ২০১৯ | 904 বার পড়া হয়েছে

ভাইরাল হওয়া ছবিটি চকবাজারের নয়

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | 898 বার পড়া হয়েছে

বহুমাত্রিক জীবন

১০ জুলাই ২০১৮ | 826 বার পড়া হয়েছে

হিরো আলমের কপাল পুড়লো

০২ ডিসেম্বর ২০১৮ | 811 বার পড়া হয়েছে

টেলি সামাদ না ফেরার দেশে

০৬ এপ্রিল ২০১৯ | 724 বার পড়া হয়েছে

সেনাবাহিনীর ভয়ে লোটাস কামাল পলাতক

২৪ ডিসেম্বর ২০১৮ | 698 বার পড়া হয়েছে

ড.কামালের অফিসে ডি এম পি কমিশনার

২৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | 695 বার পড়া হয়েছে

শূণ্য আসগুলোতে বি, এন পি এর সমর্থন

২৮ ডিসেম্বর ২০১৮ | 679 বার পড়া হয়েছে

মাশরাফি এখন শাড়ির আঁচলে

২৭ ডিসেম্বর ২০১৮ | 664 বার পড়া হয়েছে

নির্বাচন কমিশনের বার্তা

২৬ ডিসেম্বর ২০১৮ | 657 বার পড়া হয়েছে

২০ দলীয় জোটের চুড়ান্ত বৈঠক আজ

০২ ডিসেম্বর ২০১৮ | 656 বার পড়া হয়েছে

আজ ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবস

১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ | 648 বার পড়া হয়েছে

যা কিছু সঙ্গে আনতে পারবেন বিমানবন্দরে

০২ মার্চ ২০১৯ | 641 বার পড়া হয়েছে

আজ সেনাবাহিনী নামছে নির্বাচনী মাঠে

২৪ ডিসেম্বর ২০১৮ | 640 বার পড়া হয়েছে

আবাবিলে ছেয়ে যাক ভোটের আকাশ

২৮ ডিসেম্বর ২০১৮ | 637 বার পড়া হয়েছে

উপদেষ্টা সম্পাদক

হাফেজ মাওলানা সাহাদাত হোসাইন

মোহাম্মদ নুরে আলম

হাফেজ মাওলানা আব্দুল হাসিব চৌধুরী

লোকমান আহমেদ

প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক

চৌধুরী হাসান মাহমুদ

প্রধান সম্পাদক

গোলাম রব্বানী

নির্বাহী সম্পাদক

হাফিজুর রহমান নাহিদ

বার্তা সম্পাদক

তাজ উদ্দিন আহমাদ

বিভাগীয় সম্পাদক

শাহ মাসুম খাদেম

সিএম হাসান

সম্পাদনা সহযোগী

ফয়েজুল ইসলাম চৌধুরী

আশিকুর রহমান

এনামুল হাসান চৌধুরী

যোগাযোগ: উম আল ধম রোড, মাইজার, আল রাইয়্যান, কাতার। ফোন: +974.77664095, ই-মেইল: foursidenews@gmail.com

all right reserved

design and development by: webnewsdesign.com