সব

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন

প্রার্থীদের খেলাপি ঋণের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

নিউজ ডেস্ক | শুক্রবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৮ | 432 বার পড়া হয়েছে
প্রার্থীদের খেলাপি ঋণের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

যে সব ব্যক্তি ঋণ খেলাপি, অথচ জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহী- এমন ব্যক্তিদের তথ্য দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। প্রয়োজনে মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের সময় ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের রিটার্নিং অফিসারের দফতরে উপস্থিত থাকারও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ সংক্রান্ত এক সার্কুলার জারি করে সব ব্যাংকের এমডির কাছে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতিবিভাগের মহাব্যবস্থাপক আবু ফরাহ মো. নাছের স্বাক্ষরিত সার্কুলারে বলা হয়, ‘গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ-১৯৭২ এর ১২ অনুচ্ছেদের বিধান অনুসারে কোনো ঋণ খেলাপি ব্যক্তি জাতীয় সংসদের সদস্য হওয়ার যোগ্য নন বিধায় তিনি নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন না’। সে কারণে নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ব্যক্তিদের ঋণ খেলাপি সংক্রান্ত তথ্য সব তফসিলি ব্যাংক থেকে সরবরাহ করা বাধ্যতামূলক।



সার্কুলারে আরও বলা হয়, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৮ নভেম্বর বিকাল ৫টার পর মনোনয়নপত্র দাখিলকারীদের নাম, পিতা, মাতা, স্বামীর নাম ও প্রয়োজনীয় অন্য তথ্য ব্যাংক কর্মকর্তারা নিজ-উদ্যোগে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসার থেকে সংগ্রহ করবে এবং প্রয়োজনীয় যাচাই-বাছাই শেষে কেউ ঋণ খেলাপি থাকলে সে তথ্য রিটার্নিং অফিসারের কাছে সরবরাহ করার নির্দেশনা দেয়া হল। এছাড়া ঋণ খেলাপি সংক্রান্ত তথ্য মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিন বা তার আগে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসারকে প্রদান করতে হবে। এ ক্ষেত্রে প্রয়োজনে ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের সময় রিটার্নিং অফিসারের দফতরে উপস্থিত থাকার জন্যও নির্দেশনা প্রদান করা হল। এর আগে ১২ নভেম্বর এ সংক্রান্ত সহায়তা চেয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে নির্বাচন কমিশন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ ব্যাংক এ নির্দেশনা দেয়।

নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগেই গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ সংশোধন করা হয়। সংশোধিত আইন অনুযায়ী কোম্পানির পরিচালক ও ফার্মের মালিকরা মনোনয়নপত্র দাখিলের আগে খেলাপি ঋণ পরিশোধ বা নবায়ন করলে তিনি নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন। তবে অন্যদের ক্ষেত্রে আগের বিধানই চালু রয়েছে। আগে ঋণ খেলাপিদের নির্বাচনে প্রার্থী হতে হলে কমপক্ষে ৭ দিন আগে ঋণ খেলাপির দুর্নাম থেকে মুক্ত হতে হতো। কোম্পানির পরিচালক ও ফার্মের মালিক ছাড়া অন্য প্রার্থীদের ক্ষেত্রে এই নিয়মই প্রযোজ্য হবে।

তবে বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনে এই বিষয়ে কোনো কিছু উল্লেখ করা হযনি। এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা জানান, গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ ১২ অনুচ্ছেদের বিধান অনুযায়ী কেন্দ্রীয় ব্যাংক সার্কুলারটি জারি করেছে। ওই আইনে এই বিষয়ে ব্যাংকগুলোর করণীয় সম্পর্কে বলা হয়েছে। যে কারণে সার্কুলারে বিষয়টি উল্লেখ করা হয়নি। একই বিষয়ে অপর একটি সার্কুলার আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছেও পাঠানো হবে।

এর আগে এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে বাণিজ্যিক ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে মৌখিকভাবে নির্দেশনা দেয়া হয় প্রত্যেক শাখার ঋণ খেলাপিদের তালিকা হালনাগাদ করে রাখার জন্য। ইতিমধ্যে তারা নিজ নিজ কেন্দ্রীয় ঋণ তথ্য ভাণ্ডার (সিআইবি) হালনাগাদ করে রেখেছে। এখনও যারা খেলাপি ঋণ নবায়ন করছে তাদের তথ্যও তাৎক্ষণিকভাবে হালনাগাদ করা হচ্ছে। এসব তথ্য সঙ্গে সঙ্গে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুারোকেও জানিয়ে দেয়া হচ্ছে। যাতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকও তাদের সিআইবি হালনাগাদ করে রাখতে পারে।

এ বিষয়ে ইতিমধ্যে অর্থমন্ত্রণালয় ও নির্বাচন কমিশন থেকে আলাদাভাবে প্রজ্ঞাপন জারি করে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে পাঠিয়েছে। গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ অনুযায়ী এখন ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও কয়েকটি বিশেষায়িত ব্যাংকের ঋণ খেলাপিরা নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না।

সূত্র:যুগান্তর

Facebook Comments

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বহুমাত্রিক জীবন

১০ জুলাই ২০১৮ | 826 বার পড়া হয়েছে

বাড়লো পাসপোর্টের ফি

০৫ আগস্ট ২০১৯ | 514 বার পড়া হয়েছে

দীর্ঘ দিনের পর আরব-আমিরাতের শ্রম বাজারের খোলার আশা

১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | 489 বার পড়া হয়েছে

সবজির বাজারে এথন স্বস্তি

২৪ নভেম্বর ২০১৮ | 450 বার পড়া হয়েছে

১০ বছরে খেলাপি ঋণ বেড়েছে ৭৬৮৮৯ কোটি টাকা

০৭ ডিসেম্বর ২০১৮ | 410 বার পড়া হয়েছে

উপদেষ্টা সম্পাদক

হাফেজ মাওলানা সাহাদাত হোসাইন

মোহাম্মদ নুরে আলম

হাফেজ মাওলানা আব্দুল হাসিব চৌধুরী

লোকমান আহমেদ

প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক

চৌধুরী হাসান মাহমুদ

প্রধান সম্পাদক

গোলাম রব্বানী

নির্বাহী সম্পাদক

হাফিজুর রহমান নাহিদ

বার্তা সম্পাদক

তাজ উদ্দিন আহমাদ

বিভাগীয় সম্পাদক

শাহ মাসুম খাদেম

সিএম হাসান

সম্পাদনা সহযোগী

ফয়েজুল ইসলাম চৌধুরী

আশিকুর রহমান

এনামুল হাসান চৌধুরী

যোগাযোগ: উম আল ধম রোড, মাইজার, আল রাইয়্যান, কাতার। ফোন: +974.77664095, ই-মেইল: foursidenews@gmail.com

all right reserved

design and development by: webnewsdesign.com